আমিরুল মুমেনিন আলি ইবনে আবি তালিবের (আ.) ‎বিশেষত্বসমূহ-১

উম্মতের মধ্যে তিনিই সর্বপ্রথম নামাজ আদায় করেন

হাদিস নং ১: হাব্বাহ্‌ উরানি বলেন, আলিকে (আ.) আমি বলতে শুনেছি, তিনি বলছিলেন: আমিই প্রথম ব্যক্তি যে রাসুলের (সা.) সঙ্গে নামাজ পড়েছি।

أخبرنا أبو عبد الرحمان، أحمد بن شعيب بن عليّ النسائي، قال: أخبرنا محمّد بن المثنّى قال: حدّثنا عبد الرحمان (يعني ابن مهدي) قال: حدّثنا شعبة عن سلمة بن كهيل قال: سمعت حبّة العرني قال: سمعت عليّا يقول: «أنا أوّل من صلّى مع رسول اللّه صلى اللّه عليه و سلم».

হাদিস নং ২: জাইদ ইবনে আরকাম বলেন: রাসুলের (সা.) সঙ্গে সর্বপ্রথম যে ব্যক্তি নামাজ আদায় করেন তিনি ছিলেন আলি (আ.)।

أخبرنا محمّد بن المثنّى، قال: حدّثنا عبد الرحمان [بن مهدي‏] قال: حدّثنا شعبة عن عمرو بن مرّة، عن أبي حمزة [طلحة بن يزيد]، عن زيد بن أرقم قال: «أوّل من صلّى مع رسول اللّه صلّى اللّه عليه و سلم عليّ».

হাদিস নং ৩: জাইদ ইবনে আরকাম বলেন: সর্বপ্রথম যে ব্যক্তি আল্লাহর রাসুলের (সা.) প্রতি ইমান আনেন তিনি ছিলেন আলি ইবনে আবি তালিব (আ.)।

أخبرنا محمّد بن المثنّى قال: حدّثنا محمّد بن جعفر قال: حدّثنا شعبة، عن عمرو بن مرّة، عن أبي حمزة، عن زيد بن أرقم قال: «أوّل من أسلم مع رسول اللّه صلّى اللّه عليه و سلم عليّ بن أبي طالب».

হাদিস নং ৪: এ হাদিসটি ৩ নং হাদিসের মতই প্রায়, তবে নাসায়ি  অপর এক সনদের মাধ্যমে জাইদ ইবনে আরকাম হতে বর্ণনা করেন: সর্বপ্রথম যে ব্যক্তি ইসলাম গ্রহণ করেন তিনি ছিলেন আলি (আ.)।

أخبرنا عبد اللّه بن سعيد، قال: حدّثنا [عبد اللّه‏] بن إدريس، قال: سمعت شعبة عن عمرو بن مرّة، عن أبي حمزة، عن زيد بن أرقم، قال: «أوّل من أسلم عليّ».

হাদিস নং ৫: এ হাদিসটিও ২ নং হাদিসের অনুরূপ, তবে নাসায়ি অপর একটি সনদের মাধ্যমে জাইদ ইবনে আরকাম হতে নিম্নরূপ বর্ণনা করেছেন: যিনি সর্বপ্রথম ইসলাম গ্রহণ করেন এবং রাসুলের (সা.) সঙ্গে নামাজ আদায় করেন তিনি ছিলেন আলি (আ.)।

أخبرنا إسماعيل بن مسعود، عن خالد- و هو ابن الحارث- قال: حدّثنا شعبة عن عمرو بن مرّة، قال: سمعت أبا حمزة مولى الأنصار قال: سمعت زيد بن أرقم يقول: «أوّل من صلّى مع رسول اللّه صلّى اللّه عليه و سلم عليّ».

و قال في موضع آخر: « [أوّل من‏] أسلم عليّ».

হাদিস নং ৬: উফাইফ [কিন্দি] বলেন: জাহেলিয়াতের যুগে একদা আমি মক্কায় গিয়ে আব্বাস ইবনে আব্দিল মুত্তালিবের বাসায় মেহমান হিসেবে ছিলাম। সূর্য উদয় হয়ে একটু উপর আসমানে উঠে এলে আমি কাবার দিকে তাকাচ্ছিলাম; এমন সময় এক যুবক এসে আকাশের দিকে তাকালেন, অতঃপর কেবলার দিকে মুখ করে দাঁড়ালেন, অল্পক্ষণ পরই এক কিশোর এসে তাঁর ডান পাশে দাঁড়ালেন এবং এরও অল্পক্ষণ পর এক মহিলা এসে তাঁদের দু’জনের পিছনে দাঁড়ালেন। অতঃপর ঐ যুবকটি (নামাজ আদায় করতে শুরু করলেন এবং) রুকুতে গেলেন, কিশোরটি এবং মহিলাটিও তাঁর সঙ্গে রুকুতে গেলেন। যুবকটি রুকু থেকে মাথা উঠালে তাঁরাও মাথা উঠালেন। যুবকটি সাজদায় গেলে তাঁরাও তাঁর সঙ্গে সাজদায় গেলেন। [এ দৃশ্য দেখে] অবাক হয়ে আমি বললাম: হে আব্বাস, কি বিশাল ব্যাপার?! আব্বাস আমার দিকে ফিরে বললেন: হ্যাঁ, সত্যিই, এটি এক বিশাল ব্যাপার! আপনি কি এ যুবকটিকে চিনেন?

বললাম: না?

বললেন: তিনি মুহাম্মদ, আব্দুলস্নাহ্‌র সনত্মান এবং আব্দুল মুত্তালিবের নাতি ও আমার ভতিজা। আর ঐ কিশোরটিকে চিনেন?

বললাম: না।

তিনি বললেন: সে আবু তালিবের পুত্র আলি, আব্দুল মুত্তালিবের নাতি এবং আমার ভাতিজা। আর যে মহিলাটি তাঁদের দু’জনের পেছনে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করলেন তাঁকে চেনেন?

বললাম: না।

বললেন: তিনি খুওয়াইলিদের কন্যা খাদিজাহ্‌ এবং আমার ভাতিজার (মুহাম্মদ) সহধর্মিনী।

আমার ভাতিজা আমাকে বলছেন: আপনার প্রতিপালকই আসমান ও জমিনের প্রতিপালক। আর তিনি যে ধর্মের উপর বলবৎ রয়েছেন সে বিষয়ে তাঁকে তিনি আদেশ দিয়েছেন। আল্লাহর কসম! সমগ্র পৃথিবীতে এই তিনজন ছাড়া আর কেউই এ ধর্মের অনুসারী নেই।

أخبرني محمّد بن عبيد بن محمّد الكوفي، قال: حدّثنا سعيد بن خثيم، عن أسد بن عبد اللّه البجلي، عن يحيى بن عفيف [الكندي‏]، عن عفيف قال: جئت في الجاهليّة إلى مكّة، فنزلت على العبّاس بن عبد المطّلب، فلمّا ارتفعت الشمس و حلّقت في السماء و أنا أنظر إلى الكعبة، أقبل شابّ فرمى ببصره إلى السماء، ثمّ استقبل القبلة فقام مستقبلها، فلم يلبث حتّى جاء غلام فقام عن يمينه، فلم يلبث حتّى جاءت امرأة فقامت خلفهما، فركع الشابّ فركع الغلام و المرأة، فرفع الشابّ فرفع الغلام و المرأة، فخرّ الشابّ ساجدا فسجدا معه. فقلت: يا عبّاس، أمر عظيم؟! فقال لي: أمر عظيم؟

فقال: أ تدري من هذا الشابّ؟ فقلت: لا. فقال: هذا محمّد بن عبد اللّه بن عبد المطلب، هذا ابن أخي. و قال: تدري من هذا الغلام؟ فقلت: لا. قال: عليّ بن أبي طالب بن عبد المطّلب، هذا ابن أخي، هل تدري من هذه المرأة الّتي خلفهما؟ قلت: لا. قال: هذه خديجة ابنة خويلد زوجة ابن أخي، هذا حدّثني أنّ ربّك ربّ السماوات و الأرض، أمره بهذا الدين الّذي هو عليه، و لا و اللّه ما على ظهر الأرض كلّها أحد على هذا الدين غير هؤلاء الثلاثة.

হাদিস নং ৭: আলি (আ.) বলেন: আমি আল্লাহর বান্দা, তাঁর রাসুলের ভাই এবং আমিই সিদ্দিকে আকবর। আমার পর, একমাত্র মিথ্যাবাদী ব্যক্তি ব্যতীত অপর কেউই এ গুণসমূহের দাবি করবে না। আমি অন্যদের চেয়ে সাত বছর পূর্ব হতেই রাসুলের (সা.) সঙ্গে নামাজ আদায় করেছি।

أخبرنا أحمد بن سليمان [الرهاوي‏] قال: حدّثنا عبيد اللّه بن موسى، قال: حدّثنا العلاء بن صالح، عن المنهال بن عمرو، عن عبّاد بن عبد اللّه، قال: قال عليّ: «أنا عبد اللّه، و أخو رسوله صلّى اللّه عليه و سلم، و أنا الصدّيق الأكبر، لا يقولها بعدي إلّا كاذب،