নাহজুল বালাগা: হিকমত ১-১০

অনুবাদ: আলহাজ্জ ড. মো. সামিউল হক

১। গৃহ যুদ্ধের সময় উষ্ট্র শাবকের মতো হয়ে যেয়ো, যার পিঠ এমন শক্ত নয় যাতে চড়া যায় অথবা বাট এমন নয় যা দোহন করা যায়।

1- قَالَ (عليه‏السلام) : كُنْ فِي الْفِتْنَةِ كَابْنِ اللَّبُونِ لَا ظَهْرٌ فَيُرْكَبَ وَ لَا ضَرْعٌ فَيُحْلَبَ

২। যে লোভে অভ্যস্ত হয়ে পড়ে সে নিজেকে অবমূল্যায়ন করে, যে নিজের অভাব অনটনের কথা প্রকাশ করে সে নিজকে অবমানিত করে, আর যার জিহবা আত্মাকে পরাভূত করে তার আত্মা দুষিত হয়ে পড়ে।

2- وَ قَالَ (عليه‏السلام) : أَزْرَى بِنَفْسِهِ مَنِ اسْتَشْعَرَ الطَّمَعَ.وَ رَضِيَ بِالذُّلِّ مَنْ كَشَفَ عَنْ ضُرِّهِ. وَ هَانَتْ عَلَيْهِ نَفْسُهُ مَنْ أَمَّرَ عَلَيْهَا لِسَانَهُ.

৩। কৃপণতা লজ্জা এবং কাপুরুষতা ত্রুটি। আর দারিদ্র একজন বুদ্ধিমান লোককেও তার নিজের বেলায় যুক্তি প্রদর্শন করতে ব্যর্থ করে এবং দুঃস্থ ব্যক্তি তার নিজের শহরেও আগন্তুকের মত।

3- وَ قَالَ (عليه‏السلام) : الْبُخْلُ عَارٌ وَ الْجُبْنُ مَنْقَصَةٌ وَ الْفَقْرُ يُخْرِسُ الْفَطِنَ عَنْ حُجَّتِهِ وَ الْمُقِلُّ غَرِيبٌ فِي بَلْدَتِهِ

৪। অযোগ্যতাই আপদ, ধৈর্যই সাহসিকতা, দুনিয়ার প্রতি নিরাসক্তিই (জুহদ) সম্পদ, আত্মসংযমই ঢাল এবং সর্বোত্তম সঙ্গী হল (আল্লাহর বিচারে) সন্তুষ্ট থাকা।

4- وَ قَالَ (عليه‏السلام) : الْعَجْزُ آفَةٌ وَ الصَّبْرُ شَجَاعَةٌ
وَ الزُّهْدُ ثَرْوَةٌ وَ الْوَرَعُ جُنَّةٌ وَ نِعْمَ الْقَرِينُ الرِّضَى

৫। জ্ঞানই মর্যাদাকর উত্তরাধিকার, শিষ্টাচার হল নতুন অলংকার, আর চিন্তা হল স্বচ্ছ দর্পণ।

5- وَ قَالَ (عليه‏السلام):الْعِلْمُ وِرَاثَةٌ كَرِيمَةٌ وَ الْآدَابُ حُلَلٌ مُجَدَّدَةٌ وَ الْفِكْرُ مِرْآةٌ صَافِيَةٌ

৬। জ্ঞানীদের বক্ষ তার গুপ্ত বিষয়ের সিন্দুক, প্রফুল্ল মুখাবয়ব হল ভালবাসার (সমপ্রীতির) বন্ধন এবং সহনশীলতা সকল দোষত্রুটির কবর।

6- وَ قَالَ (عليه‏السلام): صَدْرُ الْعَاقِلِ صُنْدُوقُ سِرِّهِ وَ الْبَشَاشَةُ حِبَالَةُ الْمَوَدَّةِ وَ الِاحْتِمَالُ قَبْرُ الْعُيُوبِ‏ئ {وَ رُوِيَ أَنَّهُ قَالَ فِي الْعِبَارَةِ عَنْ هَذَا الْمَعْنَى أَيْضاً الْمَسْأَلَةُ خِبَاءُ الْعُيُوبِ وَ مَنْ رَضِيَ عَنْ نَفْسِهِ كَثُرَ السَّاخِطُ عَلَيْهِ}.

৭। বদান্যতা কার্যকর চিকিৎসা, এ জীবনের আমল পরকালে চোখের সামনে দেখতে পাবে।

7- وَ الصَّدَقَةُ دَوَاءٌ مُنْجِحٌ        وَ أَعْمَالُ الْعِبَادِ فِي عَاجِلِهِمْ نُصْبُ أَعْيُنِهِمْ فِي آجَالِهِمْ

৮। মানুষ কী আশ্চর্যজনক যে, সে  চর্বি দ্বারা দেখে এবং এক টুকরা মাংস দ্বারা কথা বলে, অস্থি দ্বারা শুনে এবং ছিদ্রদ্বারা শ্বাস-প্রশ্বাস নেয়।

8- وَ قَالَ (عليه‏السلام) :اعْجَبُوا لِهَذَا الْإِنْسَانِ يَنْظُرُ بِشَحْمٍ وَ يَتَكَلَّمُ بِلَحْمٍ وَ يَسْمَعُ بِعَظْمٍ وَ يَتَنَفَّسُ مِنْ خَرْمٍ.

৯। কারো ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে পৃথিবী যখন অনুকূলে আসে তখন অন্যের ভালো কাজের সুকীর্তি তার নামে হয়, আর পৃথিবী প্রতিকূলে গেলে নিজের ভালো কাজের সুনাম থেকে সে বঞ্চিত হয়।

9- وَ قَالَ (عليه‏السلام)إِذَا أَقْبَلَتِ الدُّنْيَا عَلَى أَحَدٍ أَعَارَتْهُ مَحَاسِنَ غَيْرِهِ وَ إِذَا أَدْبَرَتْ عَنْهُ سَلَبَتْهُ مَحَاسِنَ نَفْسِهِ.

১০। মানুষের সাথে দেখা হলে এমন আচরণ করবে যেন তোমার মৃত্যুতে তারা কাঁদে এবং তুমি বেঁচে থাকলে তারা তোমার দীর্ঘায়ূ কামনা করে।

10- وَ قَالَ (عليه‏السلام):خَالِطُوا النَّاسَ مُخَالَطَةً إِنْ مِتُّمْ مَعَهَا بَكَوْا عَلَيْكُمْ وَ إِنْ عِشْتُمْ حَنُّوا إِلَيْكُمْ.