শবে কদরের ২৩শে রাতের বিশেষ আমল

শুরু করছি করুণাময়, দয়ালু আল্লাহর নামে।

১- সূরা আনকাবুত, রূম ও দুখান তেলাওয়াত করা।

২- এক হাজার বার সূরা কদর তেলাওয়াত করা।

৩- দোয়া জৌশান কাবির, মাকারেমুল আখলাক এবং  দোয়া ইফতিতাহ তেলাওয়াত করা।

৪- দোয়া ফারাজ তেলাওয়াত করা:

"أَللّهُمَّ كُنْ لِوَلِيِّكَ الْحُجَّةِ بْنِ الْحَسَنْ صَلَواتُكَ عَلَيْهِ وَعَلى آبائِهِ فِي هذِهِ السَّاعَةِ وَفي كُلِّ ساعَة وَلِيّاً وَحافِظاً وَقائِداً وَناصِراً وَدَلِيلاً وَعَيْناً حَتَّى تُسْكِنَهُ أَرْضَكَ طَوْعاً وَتُمَتِّعَهُ فِيها طَوِيلاً َ"

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা কুল্লি ওলিইকাল হুজ্জাতিবনিল হাসান, সালাওয়াতুকা আলাইহি ওয়া আলা আবায়িহ, ফি হাযিহিস সায়াতি ওয়া ফি কুল্লি সায়াহ, ওলিইয়াও ওয়া হাফিযা, ওয়া কাইদাও ওয়া নাসিরা, ওয়া দালিলাও ওয়া আইনা, হাত্তা তুসকিনাহু আরদাকা তাওয়া, ওয়া তুমাত্তিয়াহু ফিহা তাওয়িলা।

অর্থ: হে আল্লাহ! তোমার হুজ্জাতের জন্য তুমি এমন হও যে, তুমি তাঁর বন্ধু, রক্ষক, কায়েদ (প্রতিষ্ঠাতা), সাহায্যকারী, দিকনির্দেশক, ঝর্ণাধারার মত। যার নাম হুজ্জাত ইবনিল হাসান, তোমার দরূদ বর্শিত হোক তাঁর উপর এবং তাঁর পূর্ব পুরুষদের উপর, এই সময় এবং সর্ব সময়; যতক্ষণনা তুমি তাঁকে পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠা করে মানুষের জন্য শান্তি প্রতিষ্ঠা করবে, সেখানে সবাইকে দীর্ঘ জীবন দান কর।   

৫- আট রাকাত নামায পড়ে আল্লাহর সৃষ্টির জন্য দোয়া-এসতেগফার করা ইত্যাদি।

আল্লাহ আমাদের সবাইকে শবে কদরে বেশি বেশি ইবাদাত করার মধ্য দিয়ে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করার তৌফিক দিন।

-সমাপ্ত-

কীওয়ার্ড: